/ বিনোদন

নাটকে সিন্ডিকেট আছে: অভিনেত্রী ফারিয়া শাহরিন

দেলোয়ার হোসাইন - সুপার এডমিন

আপডেট: 01-05-2021 11:29:44

গত বছর একটি সাক্ষাৎকারে হাজির হয়ে ছোট ও বড় পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী দাবি করেছিলেন, টেলিভিশন নাটকে একধরনের বাজে সিন্ডিকেট রয়েছে। এবার একই দাবি করলেন অভিনেত্রী ফারিয়া শাহরিন। তার দাবি, এই সিন্ডিকেটে কিছু জনপ্রিয় অভিনেতা-অভিনেত্রীরা রয়েছেন, যারা নির্দিষ্ট কয়েকজনের বিপরীতে ছাড়া কাজ করেন না।



অর্থাৎ ফারিয়া শাহরিন বোঝাতে চেয়েছেন, নাটকের ওই সকল নায়ক-নায়িকা নিজেই ঠিক করেন তাদের বিপরীতে কোন অভিনেতা বা অভিনেত্রী কাজ করবেন। যাতে তাদের অভিনীত নাটক হিট হয়। সিন্ডিকেটের বাইরে তারা কারও সঙ্গে অভিনয় করতে চান না। শুক্রবার ভোরে ফেসবুকে দেয়া এক স্ট্যাটাসে এই বিষয়গুলোর দিকে ইঙ্গিত করেন ফারিয়া শাহরিন।



পাশাপাশি অভিনেত্রী এও উল্লেখ করেন, এখন থেকে তিনি নতুন অভিনেতাদের সঙ্গে কাজ করবেন। তাদেরকে প্রমোট করবেন। ইংরেজি হরফে লেখা স্ট্যাটাসে শাহরিন লেখেন, ‘ঠিক করেছি নতুন, একদমই পরিচিত না, এরকম নায়কদের সাথে কাজ করব। ওদের প্রমোট করব। যদি চারজনও আমাকে চেনে, ওদের হয়তো একজন চিনবে আমার থ্রুতে। ওরা এভাবে এক-দুজন করে পরিচিত হয়ে উঠবে। আমার ভালো লাগবে।’


তিনি আরও লেখেন, ‘আমি অনেক ছোট নায়িকা। বড় নায়করা আমাদের সাথে কাজ করে না। বড় নায়িকাদের সাথে কাজ করে। কী সব যেন এখন শুনি, সিন্ডিকেট না কী যেন। তাই একজন ছোট নায়িকা হিসেবে আমি নতুন ছেলেদের সাথে কাজ করব। ডিসিশন ফাইনাল।’


দেশীয় নাটকে সিন্ডিকেটের কথা বেশ কয়েক বছর ধরে চলে আসছে। এখানে নায়িকা বেশ কয়েকজন অভিনেতা আছেন যারা শুধু নির্দিষ্ট দুই তিনজন অভিনেত্রীদের বিপরীতেই কাজ করেন। নতুনদের সাথে কাজ করতে চান না।


তেমনি কয়েকজন নায়িকাও নাকি আছেন, যারা নির্দিষ্ট নায়কদের সঙ্গে কাজ করেন এবং তাদের এসব সিদ্ধান্ত পরিচালকদের ওপর চাপিয়ে দেন। নাটকের বাজারে এসব নায়ক-নায়িকাদের কদর থাকায় পরিচালকরাও তাদের আবদার হাসিমুখে মেনে নেন। সেই সিন্ডিকেটের কথাই আরও একবার সবাইকে মনে করিয়ে দিলেন ফারিয়া শাহরিন।




২০১৮ সালের শুরুর দিকে একটি জাতীয় দৈনিকের সাক্ষাৎকারে হাজির হয়ে দেশের এক নামকরা চিত্রনায়ক ও প্রযোজকের নামে কাস্টিং কাউচের অভিযোগ তুলে ঝড় বইয়ে দিয়েছিলেন এই অভিনেত্রী। শাহরিন বলেছিলেন, ওই নায়ক ও প্রযোজক নাকি তাকে চলচ্চিত্রে অভিনয়ের সুযোগ দেওয়ার টোপ ফেলে বিছানায় নিতে চেয়েছিলেন। যদিও কারো নাম প্রকাশ করেননি তিনি।


ফারিয়া শাহরিনই দেশের প্রথম অভিনেত্রী, যিনি এভাবে প্রকাশ্যে নিজের সঙ্গে ঘটা বাজে অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করেছিলেন। কিন্তু এই সাহসিকতার জন্য তাকে তোপের মুখেও পড়তে হয়েছিল। ফেসবুক লাইভে একাধিক অভিনেত্রী তার বিরুদ্ধে ক্ষোভ ঝেড়েছিলেন। কয়েকটি টকশো’তেও হয়েছিল তুমুল সমালোচনা। আলোচনায় থাকতেই নাকি এমন অভিযোগ করেছিলেন শাহরিন।


একই বছর অর্থাৎ ২০১৮ সালের অক্টোবরে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ সুন্দরী প্রতিযোগিতাকে কমেডি শো বলে কটাক্ষ করে আলোড়ন সৃষ্টি করেন অভিনেত্রী। তিনি প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীদের শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন। এই ঘটনা নিয়েও সে সময় আলোচনা-সমালোচনা কম হয়নি। নিজে একটি সুন্দরী প্রতিযোগিতা থেকে পরিচিতি পেয়ে একই ধরনের আরেকটি প্রতিযোগিতা ও প্রতিযোগীদের নিয়ে তিনি কীভাবে এমন মন্তব্য করেন, সেই প্রশ্ন তোলেন সবাই।


এরপর গত বছরের ডিসেম্বরে প্রস্তাব পাওয়া একটি ওয়েব সিরিজের চিত্রনাট্য ফেসবুকে প্রকাশ করে আবারও আলোচনায় আসেন ফারিয়া শাহরিন। কারণ, ওই সিরিজটিতে শাহরিনের চরিত্রের অংশটুকু এতটাই নোংরা ছিল যে, তিনি সেটির প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন এবং ফেসবুকে চিত্রনাট্যের স্ক্রিনশট শেয়ার করে এর প্রতিবাদ করেন। এবার কথা বললেন নাটকের সিন্ডিকেট নিয়ে।


Comments (0)

Comments